Archives

অফুরন্ত পাতার মেলায়

ঝরছে সোনালি পাতা

বসন্তের হলুদ সময়

উপচে পড়া আনন্দের মতো তাকে

ডেকে নিয়ে যায়

বাগানের বনান্ত খেলায়…

 

প্রান্তরে ছড়িয়ে পড়ে

বিশাখার শেষ প্রণোদনা

মাটির রেনুর রোদে কণা কণা বৃক্ষের রোদনা

তোমার আমার এই্ বিচ্ছেদের

পড়ন্ত বেলায়

যতো ছায়া,

সবুজ সঞ্চয়, যতো ফুল যতো মায়

রাত্রির ভেতরে যতো জেগে ওঠা নিবিড় নিদ্রায়

মিশে যায়।

 

পাতার অক্ষরে লেখা আমাদের পথের নিয়তি

এঁকে বেঁকে চলে যাওয়া দূরত্বের বিস্তৃতি

জন্ম থেকে জন্মের আরতি,

এই রতি, রক্ত তোমার আমার—

 

সুদূর অতীত হতে ফিরে আসা

বার বার দেখা স্বপ্নভাব,

যেনো বা কোথাও দেখা হয়েছিলো বুঝি দুজনার!

বসন্তের ফুলে ফলে কোকিল না ডাকা বরষায়

হেমন্তে হিমেল নদী—

স্মৃতির আঘ্রাণ কুয়াশায়—

 

যেনো তুমি কেঁদে ওঠো, হেসে ওঠো

আদিগন্ত উড়ন্ত পাতায়

যেখানে সময় নেই, রাত নেই দিন নেই

অফুরন্ত পাতার মেলায়